Android Mobile ভালো রাখার কৌশল

মোবাইল ভালো রাখার কৌশল

অনলাইনে কাজ করতে গেলে আমাদের ভালো একটি ডিভাইস বা ফোন দরকার। প্রথমেই আগে দেখে নিতে হবে যে আমাদের ফোনটি আসলেই ইন্টারনেটে কাজের যোগ্য কিনা।

আজকের আর্টিকেলে আপনাদের সাথে আলোচনা করবো মোবাইল দিয়ে কিভাবে আপনারা ইনকাম ও ভালো রাখবো। মোবাইল দিয়েই মূলত অধিকাংশ মানুষের ইউটিউব ফেসবুক টুইটার ইনস্টাগ্রাম সবকিছু ব্যবহার করে।

তাই আজকে আপনাদেরকে মোবাইল দিয়ে কিভাবে আপনার মোবাইল ভালো রাখবেন এর সিস্টেম সেই পদ্ধতি গুলো বলবো। এবং আপনাদেরকে আরও বলব কোন ধরনের মোবাইল ডিভাইস দিয়ে আপনারা অনলাইনে কাজ করতে পারবেন।

সম্পূর্ণ আর্টিকেল টুকু ভালভাবে পড়ুন তাহলেই আপনারা এই বিষয়ে ক্লিয়ার হয়ে যাবে। চলুন সরাসরি এবার আমরা মূল আলোচনায় চলে যায়।

এন্ড্রয়েড মোবাইল

আমরা সচরাচর অনলাইনে সব সময় নেট কানেকশন এবং নেট অফ করে থাকি। দিনের মধ্যে প্রায় অধিকাংশ সময় আমরা অন-অফ করি। তাই আমাদের মোবাইলে অনেক পরিমান চাপ সৃষ্টি হয়। সেজন্য আমরা কোন ধরনের মোবাইল ব্যবহার করলে আমাদের মোবাইল সেট থাকবে। সর্ব প্রথমে আপনাদেরকে একটা বিষয় বলব যে আপনারা ৪ জিবি র্যাম এর নিচে মোবাইল কিনবেন না।

কেননা এর নিচের যে মোবাইল গুলো রয়েছে 3g, 2g এখানে আপনাদের প্রসেসিং গুলো খুবই স্লো। সেই প্রসেসর আপনাদের পর্যাপ্ত পরিমাণ সার্ভিস দিতে পারবে না। তাই আপনারা এই সমস্ত ফোন থেকে বিরত থাকবেন। যতসম্ভব পারেন ৬ জিবি র্যাম কিনুন। আপনার ফোনের স্টোরেজ কত থাকলে ভালো। এই প্রশ্নটা সবারই আসতে পারে।
তাই আপনাদের বলব আপনারা অবশ্যই 128gb নিচে কিনবেন না।

অনলাইনে সচরাচর অনেক ফাইল অনেককে ডকুমেন্টস যেগুলো আপনার ফোনে ইন্সটল করা থাকে। সব সময় সেই অ্যাপস কিংবা ডকুমেন্টগুলো ওপেন কিংবা আনইন্সটল ইন্সটল করতে হয়। এর জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ আপনার ফোনে জায়গা দরকার। সেই জায়গাগুলো যদি না থাকে সে ক্ষেত্রে আপনার কাজের ব্যাঘাত ঘটবে। আর আপনি কাজের অগ্রসর হতে পারবেন না। সে খেতে আপনাকে আপনার মোবাইল স্লো হবে এবং আপনাকে কাজে বাধা সৃষ্টি করবে।
আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে আপনি সবসময়ই কম অ্যাপস ব্যবহার করুন।

একাধিক অ্যাপস ইন্সটল করে রাখবেন না। যতসম্ভব একটা ফোনে ১৫ থেকে ২০ টা অ্যাপস ইন্সটল করে রাখুন। তাহলে দেখবেন শতভাগ আপনার মোবাইল সেভ থাকবে। অনলাইনে কাজ করতে এসে কখনোই মেজাজ গরম করা যাবে না। সব সময় ওই ঠান্ডা মাথায় কাজ করুন। অধিকাংশ সময়ই নেট বারে বারে অন অফ করা বন্ধ রাখুন।

Leave a Comment