মহাকাশে দ্যা চ্যালেন্জ সিনেমার শুটিং ধারণ করল পরিচালক

শুটিং
আপনার অনেক আশচার্য হবেন যে কিভাবে মহাকাশে বিশাল ফাঁকা জায়গায় সিনেমার শুটিং ধারণ করে পরিচালক নিজেই।
আকাশে শুটিং করতে গিয়েমঙ্গল গ্রহে ভূমিকম্পের শিকার।
১১ অক্টোবর ২০২১ আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে যান রাশিয়ার অভিনেত্রী ইয়ুলিয়া পেরেসিলত ও পরিচালক ক্লিম শিপেংকো।রাশিয়ার এ দলের নেতৃত্ব দেন মহাকাশচারী আনন্ত শাকপ্লেরভ।

তারা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভাবে অধিক সময় নিয়ে শুটিং এর কাজ সমাপ্তি করে।
১২ দিনের এ মিশনে তারা মহাকাশযান সইউজ ms19 এ করে ঘুরেন। মহাকাশে তারা যে সিনেমার শুটিং করেন তার নাম দেয়া চ্যালেঞ্জ। রাশিয়ার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা রকমের নেতৃত্বে মহাকাশ মিশনটির পরিচালনা করেন আনন্ত নিজেই

ইয়ুলিয়া ও শিপিং কো ১৭ অক্টোবর ২০২১ পৃথিবীতে ফিরে আসেন। উল্লেখ্য মিশন ইস পসিবল সিরিজের সিনেমার শুটিংয়ের জন্য জনপ্রিয় মার্কিন অভিনেতা টম ক্রুজকে মহাকাশে পাঠানোর কথা জানায় যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। নাসার বিজ্ঞানীরা অনেক ধরনের কঠিন বিষয় গুলো রিসার্চ করে জীবনের
খুব ঝুকি নিয়ে।

এজন্য নাশা ও ধনকুবের ইলন মাস্কের এসপেন এক্স একসঙ্গে কাজ করছে। সেই প্রকল্প কে পরাস্ত করতেই রাশিয়ার এই পদক্ষেপ।

মঙ্গল গ্রহে ভূমিকম্প
আকাশেও ভুমি কম্পও দেখা মিলল রোবটের কাছে।
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ অতীতের মতো মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার ইনসাইড ল্যান্ডার রোবট লাল গ্রহ মঙ্গল সমভূমিতে নীরবে বসে ছিল। কিন্তু এক সময় তা কাঁপতে শুরু করে। এ কম্পনস্থায়ী হয়ে প্রায় দেড় ঘন্টা ছিল।

রোবটটি নিজের সিসমোমিটার এর সাহায্যে এ কোম্পানির তথ্য পাঠায় পৃথিবীতে। রোবটের পাঠানো তথ্য অনুসারে এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৪.২

২০১৮ সালের নভেম্বরে মঙ্গল গ্রহে ইনসাইড ল্যান্ডার কে পাঠানোর পর থেকেই এমন একটি ভূমিকম্প পর্যালোচনা অপেক্ষায় ছিল নাসার বিজ্ঞানীরা। সম্প্রতি আরও দুইটি বড় ভূমিকম্প হয়। ২৫ আগস্ট ২০২১ রোবটটি দুটি ভূমিকম্পের সংকেত পাঠায়।

এটি ছিল ৪.২ মাত্রা এবং অপরটি ৪.১ মাত্রায়। তাহলে এ থেকে আমরা বুঝতে পারি মঙ্গল গ্রহেও ভূমিকম্পের সৃষ্টি হয়। এবং উল্লেখিত বিষয়ে আরো একটি আমরা সুস্পষ্ট জ্ঞান অর্জন করি যেটা মহাকাশে শুটিং হয় সিনেমার জন্য।

৯০ বছর বয়সে মহাকাশ ভ্রমণ।

বয়স হয়ে গেছে ৯০ বছর তবুও মহাকাশ ভ্রমণের ইচ্ছা বিন্দুমাত্র কমেনি কানাডিয়ান অভিনেতা ইউলিয়াম। এর

১৩ অক্টোবর ২০২১ যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস থেকে মার্কিন বিলিয়নিয়ার জেফ বেজোসের মহাকাশ ভ্রমণ সংস্থা ওজি অরিজিন থেকে মহাকাশের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন প্রখ্যাত অভিনেতা। মাত্র ১১ মিনিটে এযাত্রা সফলভাবে শেষ করে তিনি হন বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বয়সী মহাকাশযাত্রী।

চীনের দ্বিতীয় নারী মহাকাশচারী।

খুবই সারা জাগিয়ে তুলেছে চীনের দ্বিতীয় নারী মহাকাশ চারী।
১৫ অক্টোবর ২০২১ চায়না অ্যান্ড স্পেস এজেন্সি তিনি মহাকাশচারী কে লংমার্চ 2f রকেট করে মহাকাশ পাঠায়। তারপর সিংহ ১৩ মহাকাশযান তাদের নিয়ে যাবে পৃথিবীর কক্ষপথে নির্মীয়মান চিনা মহাকাশ স্টেশনে তারা যেখানে ৬ মাস অবস্থান করবেন।

উত্তর-পশ্চিম চীনের গোবি মরুভূমি লাগোয়া সি ওয়ান স্যাটেলাইট। লঞ্চ সেন্টার থেকে লংমার্চ টু এফ এল কেটে পোকেমন করা হয়। তিনজন মহাকাশচারী মধ্যে রয়েছেন একজন নারী তার নাম ওয়াং ইয়াপিং। বয়স ৪১ বছর। তিনি চীনের দ্বিতীয় নারী মহাকাশচারী হিসেবে পরিচিত।

অন্য দুজন মহাকাশচারী। হলেন যাই জিগান ওয়াংচু। রাশিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের ৩৯ বছর পর ২০১২ সালে চীন তাদের প্রথম নারী মহাকাশচারী লিওনকে মহাকাশে পাঠায়।

বুধ গ্রহের ছবি প্রকাশ

খুবই আশচার্জ বিষয় নিয়ে মুখ খুলল বিজ্ঞানীরা।
২ অক্টোবর ২০২১ সৌরজগতের সবচেয়ে ছোট গ্রহ বুধ এর ছবি ধারণ করে ইউরোপীয় জাপানিজ মিশরের। নভোযান বেপি কলম্বো। ২০১৮ সালে নভোযানটি যাত্রা শুরু করে ১ নভেম্বর ২০২১ প্রথমবারের মতো ছবি ধারণ করতে সক্ষম হয়। খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভাবে অধিক কার্যকর ভূমিকা পালন করে তারা।

Leave a Comment